২৮ জানুয়ারি ২০২২ ১২:৯:৫২
logo
logo banner
HeadLine
২৪ জানুয়ারি ২০২২ : ৩৯.৯৫ শতাংশ হারে চট্টগ্রামে নতুন শনাক্ত ৯৮৯ * ২৩ জানুয়ারি ২০২২ : ৩৮.৬৪ শতাংশ হারে চট্টগ্রামে নতুন শনাক্ত ১০২৬ * ২৩ জানুয়ারি ২০২২ : ৩১.২৯ শতাংশ হারে দেশে নতুন শনাক্ত ১০৯০৬, মৃত ১৪ * স্বাধীনতা রক্ষা ও গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে কাজ করার জন্য পুলিশ সদস্যদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান * ২১ জানুয়ারি ২০২২ : ২৮.৪৯ শতাংশ হারে দেশে নতুন শনাক্ত ১১৪৩৪ জন, মৃত ১২ * আবারও করোনা সংক্রমণ বাড়ায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ৫ জরুরি নির্দেশনা * ২১ জানুয়ারি ২০২২ : ৩৩.০১ শতাংশ হারে চট্টগ্রামে নতুন শনাক্ত ১০১৭ জন, মৃত ১ * করোনা সংক্রমণ বাড়ায় আগামী দুই সপ্তাহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী * ২০ জানুয়ারি ২০২২ : ২৬.৩৭ শতাংশ হারে দেশে নতুন শনাক্ত ১০৮৮৮ জন, মৃত ৪ * বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবে না : প্রধানমন্ত্রী * ১৯ জানুয়ারি ২০২২ : ২৫.১১ শতাংশ হারে দেশে নতুন শনাক্ত ৯৫০০ জন, মৃত ১২ * ১৯ জানুয়ারি ২০২২ : ৩০.৯৮ শতাংশ হারে চট্টগ্রামে নতুন শনাক্ত ৯৮৯ জন, মৃত ১ * ১৫ জানুয়ারি ২০২২ : ১৪.৩৫ শতাংশ হারে দেশে নতুন শনাক্ত ৩৪৪৭ জন, মৃত ৭ * ১৫ জানুয়ারি ২০২২ : ১২.২৯ শতাংশ হারে চট্টগ্রামে নতুন শনাক্ত ২৩৯ জন * বাড়ছে না ভাড়া, অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলবে বাস *
     13,2022 Thursday at 11:13:46 Share

৫১'তে পা দিলেন সজীব ওয়াজেদ জয়

৫১'তে পা দিলেন সজীব ওয়াজেদ জয়

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৌহিত্র এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিশ্বখ্যাত পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিন আজ। তিনি মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ১৯৭১ সালের ২৭ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর তার নাম রাখেন নানা শেখ মুজিবুর রহমান। উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত, দ্য ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাস অ্যাট আর্লিংটন ও হার্ভার্ড গ্র্যাজুয়েট সজীব ওয়াজেদ জয়কে ডিজিটাল বাংলাদেশের নেপথ্য নায়ক বলা হয়ে থাকে। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এবং সজীব ওয়াজেদ জয়ের উদ্যোগে বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ব্যাপক উন্নতি অর্জন করেছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তার কন্যা শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করে গেছেন কম্পিউটার বিজ্ঞানী সজীব ওয়াজেদ জয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৫ সালে বেতবুনিয়ায় ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তারই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র সজীব ওয়াজেদ জয় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠান। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহত হওয়ার সময় মা ও বাবার সঙ্গে জার্মানিতে ছিলেন জয়। পরে মায়ের সঙ্গে রাজনৈতিক আশ্রয়ে ভারতে চলে যান তিনি। তার শৈশব ও কৈশোর কাটে ভারতে। সেখানকার নৈনিতালের সেন্ট জোসেফ কলেজে লেখাপড়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাস অ্যাট আর্লিংটন থেকে কম্পিউটার সায়েন্সে স্নাতক করেন তিনি। পরে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লোকপ্রশাসনে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। ২০০২ সালের ২৬ অক্টোবর ক্রিস্টিন ওভারমায়ারকে বিয়ে করেন সজীব ওয়াজেদ জয়। তাদের একটি মেয়ে আছে।

লেখাপড়া করা অবস্থায় রাজনীতির প্রতি অনুরক্ত থাকলেও জয় সক্রিয় রাজনীতিতে নাম লেখান ২০১০ সালে। ঐ বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি পিতৃভূমি রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্য পদ দেওয়া হয় তাকে, যার মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে রাজনীতিতে আসেন তিনি। বর্তমানে মা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টার দায়িত্বে আছেন। ২০০৭ সালে জয় ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম কর্তৃক গ্লোবাল লিডার অব দ্য ওয়ার্ল্ড নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার বিষয়টি নিয়ে আসেন। পর্দার অন্তরালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে থেকে গোটা দেশে তথ্যপ্রযুক্তির বিপ্লব ঘটান এই তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ। বর্তমানে দলীয় ঘরানা ছাড়াও তথ্যপ্রযুক্তি, রাজনীতি, সামাজিক, অর্থনৈতিক, শিক্ষাবিষয়ক বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তথ্যপ্রযুক্তির বিকাশ, তরুণ উদ্যোক্তা তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন জয়। দেশের আইসিটি খাত সংশ্লিষ্টদের মতে, শিক্ষাগত যোগ্যতা আর পেশাগত কাজের অভিজ্ঞতা-এই দুইয়ের মিশেলেই দেশের আইসিটি খাতের এমন ত্বরিত উন্নতিতে সফল নেতৃত্ব দিতে পেরেছেন সজীব ওয়াজেদ জয়।

ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের প্রাথমিক ধাপ হিসেবে ইন্টারনেটকে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু করেন সজীব ওয়াজেদ জয়। ইউনিয়ন পর্যায়ের পাশাপাশি চর বা পার্বত্য অঞ্চলের মতো প্রত্যন্ত এলাকায় ইন্টারনেট পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। সজীব ওয়াজেদ জয়ের পরামর্শে এবং দিকনির্দেশনায় কমতে থাকে বাংলাদেশের ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের মূল্য। গ্রাহক পর্যায়ে এই মূল্য আরো কমিয়ে আনতে কাজ করছেন তিনি।

সজীব ওয়াজেদ জয়ের জন্মদিন উপলক্ষ্যে আওয়ামী যুবলীগ আজ বেলা ১১টায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে। এছাড়াও স্বাস্থ্যবিধি মেনে জেলা/ মহানগর/ উপজেলা/ থানা/ পৌরসভা/ ইউনিয়নে মিলাদ ও দোয়া এবং বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করা হবে। এদিকে আজ বিকালে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ সজীব ওয়াজেদ জয়ের জন্মদিন উপলক্ষ্যে কেক কাটা ও তার সু-স্বাস্থ্য কামনায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে। বিকাল ৫টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর প্রাঙ্গণে কৃষক লীগের উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া দলের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক উপকমিটি ভার্চুয়াল আলোচনা সভার আয়োজন করেছে। বেলা ১১টায় এ আলোচনাসভায় দেশ বরেণ্য শিক্ষাবিদ, রাজনীতিবিদগণ আলোচনায় অংশ নেবেন। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করবেন। সভাপতিত্ব করবেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক প্রকৌশলী আবদুস সবুর।

User Comments

  • রাজনীতি