২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ২১:৪৯:৫৫
logo
logo banner
HeadLine
রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের পথ * রোহিঙ্গা শরণার্থীদের তথ্য সরবরাহে মিডিয়া সেল গঠন * রোহিঙ্গাদের জন্য পৌনে ৩ কোটি ডলার দেবে যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি দেবে দেড় কোটি * আশ্রয়কেন্দ্র থেকে পালানোর সময় কয়েক ঘণ্টায় আটক ২১০ * রোহিঙ্গা সঙ্কট নিরসনে মুসলিম দেশগুলোর নেতাদের উদ্দ্যেশ্যে শেখ হাসিনার ৬ প্রস্তাব * মেক্সিকোয় ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৪৮ * সামরিক অভিযান বন্ধ ও রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার আহ্বান জাতিসংঘ মহাসচিবের * রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে সু চিকে আলোচনার আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের * চাল ব্যবসায়ীদের আশ্বাস, কেজি প্রতি দাম কমবে ২-৩ টাকা * সাগরে লঘুচাপ , বন্দরে ৩ নং সতর্ক সংকেত * জেলা প্রশাসনকে অবহিত না করে রোহিঙ্গা শিবিরে কোন ত্রান নয় * মানবতার শীর্ষমুখ শেখ হাসিনা * রোহিঙ্গাদের ২১৪টি গ্রাম ধ্বংস: হিউম্যান রাইটস ওয়াচ * ষড়যন্ত্রের 'ক' পরিকল্পনা ব্যর্থ 'খ' পরিকল্পনাটি কী হবে? * এখনও বালুতে মাথা গুঁজে রেখেছেন সু চি: অ্যামনেস্টি * আন্তরজাতিক চাপে ভীত নন, রোহিঙ্গাদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলার আগ্রহ সুচির * সামরিক নয়, কূটনৈতিক পথেই রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান * কমে এসেছে রোহিঙ্গা স্রোত, তৈরী হচ্ছে ১৪ হাজার তাঁবু, * দক্ষিণ আফ্রিকা পৌঁছাল টাইগাররা * আরও ১২ স্কুল ও কলেজ সরকারি হলো * রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বন্য হাতির আক্রমণে নিহত ২ * শরণার্থী আশ্রয় নীতিমালা চেয়ে হাইকোর্টে রিট * ৩০ টাকা দরে ওএমএসের চাল বিক্রি শুরু * অবৈধ চাল মজুদকারীকে গ্রেফতারের নির্দেশ * সংকট নিরসনে সু চির সামনে 'শেষ সুযোগ': জাতিসংঘ * ভারী বৃষ্টি হতে পারে, বন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা * বেড়েই চলেছে চালের বাজার * ১০ জিবি র্যাাম, ২৫৬ জিবি রম, ৩২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও ৬ ইঞ্চি ডিসপ্লে নিয়ে আসছে নকিয়া * রোহিঙ্গা সংকট থেকে দৃষ্টি সরাতেই আকাশসীমা লঙ্ঘনের সামরিক উসকানি * রোহিঙ্গা বিপর্যয় 'দ্রুততম সময়ে সৃষ্ট শরণার্থী সঙ্কট' - জাতিসংঘ *
     11,2017 Monday at 22:39:17 Share

মিয়ানমারকে চাপ দিতে সংসদে প্রস্তাব গ্রহণ

মিয়ানমারকে চাপ দিতে সংসদে প্রস্তাব গ্রহণ

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিয়ে নাগরিকত্ব দিয়ে নিরাপদে বসবাস করার সুযোগ করে দিতে মায়ানমারের উপর কূটনৈতিক চাপ দেওয়ার একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে।


মিয়ানমারে দমন নিপীড়নের মুখে এই দফায় ৩ লাখের মতো রোহিঙ্গার পালিয়ে আসার প্রেক্ষাপটে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগের মধ্যে জাতীয় সংসদের সোমবারের অধিবেশনে সর্বসম্মতভাবে এই প্রস্তাবটি গ্রহণ করা হয়।


সংসদের কার্যপ্রণালী বিধির ১৪৭ ধারায় সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনির উত্থাপিত এই প্রস্তাবের উপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সংসদ সদস্যরা আলোচনায় অংশ নেন।


মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়া হলেও তাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারকে চাপ দেওয়ার উপর জোর দেওয়ার কথা বলেন সংসদ সদস্যরা।


মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে জাতিগত দমন নিপীড়নের শিকার হয়ে চার লাখের বেশি রোহিঙ্গা দশকের পর দশক ধরে বাংলাদেশে রয়েছে।


এরপর ২০১২ সালে সহিংসতার পর ফের রোহিঙ্গারা বাংলাদেশমুখী হলে তখন সীমান্তে কড়াকড়ি করে সরকার। তখন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন দীপু মনি। গত বছর একই ধরনের ঘটনা ঘটলেও একই অবস্থানেই থাকে বাংলাদেশ। তার মধ্যেও দুই বারও আরও কিছু রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকে পড়ে।


এবার গত ২৫ অগাস্ট মিয়ানমারের সেনা ও পুলিশ চৌকিতে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের হামলার পর রাখাইন রাজ্যে সেনা অভিযান শুরুর পর সীমান্তে রোহিঙ্গাদের ঢল নামে। দুই সপ্তাহে বাংলাদেশে ঢুকে পড়া রোহিঙ্গার সংখ্যা ৩ লাখে পৌঁছে গেছে।


বাংলাদেশ পরিস্থিতি শান্ত করতে এবং রোহিঙ্গাদের জন্য মিয়ানমারে ‘সেইফ জোন’ গড়ে তুলতে প্রস্তাব দিলেও ইয়াঙ্গুন সরকার তাতে সাড়া দিচ্ছে না। উল্টো রোহিঙ্গাদের ‘বাঙালি সন্ত্রাসী’ বলার মাধ্যমে মিয়ানমার বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।


রোহিঙ্গা সঙ্কটের পরিস্থিতি বর্ণনা করে বাংলাদেশে কর্মরত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকের পরপরই মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিকভাবে চাপ দিতে সংসদে প্রস্তাবটি গ্রহণ হল।


প্রস্তাবের নোটিসে দীপু মনি মিয়ানমারের দাবি প্রত্যাখ্যান করে নানা ইতিহাস থেকে তথ্য এনে বলেন, রোহিঙ্গারা মিয়ানমারেরেই নাগরিক। 
“তারা ৫০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে আরাকান রাজ্যে বসবাস করছে। চতুর্দশ ও পঞ্চাদশ শতাব্দীতে আরাকান ছিল স্বাধীন মুসলিম রাজ্য। ১৪০৪ সাল থেকে ১৬২২ সাল পর্যন্ত ১৬ জন মুসলিম সম্রাট আরাকান শাসন করেছেন। রাজা বোধাপোয়া ১৭৮৪ সালে আরাকান দখল করে তৎকালীন বার্মার সঙ্গে যুক্ত করেন।”


১৯৪৮ সালে ইউনিয়ন অফ বার্মা ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের সময়ও আরাকান বা বর্তমানের রাখাইন ওই দেশের অংশ ছিল বলেও সাবেক এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন।


তিনি বলেন, “১৯৮২ সালের বার্মার নাগরিকত্ব আইন জারির পর রোহিঙ্গাদের তাদের সকল অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়।”


রোহিঙ্গা সঙ্কট অবসানে জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের নেতৃত্বে গঠিত কমিশনের সুপারিশের কথাও বলেন দীপু মনি; যেখানে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্বের স্বীকৃতি দিয়ে ফেরত নেওয়ার কথা বলা আছে।  


দীপু মনি বলেন, “ভূমধ্য সাগরে এক আইলানের লাশ বিশ্ব বিবেককে নাড়া দিয়েছিল। শত আইলানের ক্ষত-বিক্ষত লাশ আজ নাফ নদীর তীরে ভাসছে। আমরা চাই বিশ্ব বিবেক এগিয়ে আসুক, রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াক।” খবরঃবিডিনিউজ

User Comments

  • জাতীয়