২৩ মে ২০১৮ ১:২১:২০
logo
logo banner
HeadLine
অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ আর নেই * রোহিঙ্গাক্যাম্পে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া * রাশিয়া বিশ্বকাপের ২৩ সদস্যের দল ঘোষণা আর্জেন্টিনার * গত দুইরাতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১৪ মাদক ব্যবসায়ী * নাইক্ষ্যংছড়িতে মাটি কাটার সময় পাহাড় ধসে নারীসহ নিহত ৫ * জামায়াত-শিবিরের 'তাকিয়া' কৌশল! * ভাসানচরে যাচ্ছে ১ লাখ রোহিঙ্গা * ইন্টারনেটে ধীরগতি, থাকবে ৪ দিন * গণমানুষের জন্য শেখ হাসিনার লড়াই * বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন প্রিন্স হ্যারি ও অভিনেত্রী মেগান মর্কেল * সন্দ্বীপে বজ্রপাতে নিহত ২, আহত ২ * চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ বন্ধে হচ্ছে কঠোর আইন * টেক্সাসে স্কুলে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১০ * ৩ মাসে ৫৮ কোটি ভূয়া একাউন্ট ডিলিট করেছে ফেইসবুক * দেশের কল্যাণে যা কিছু ইতিবাচক মিডিয়ায় তা তুলে ধরা উচিত * দলের নতুন নেতৃত্বের কথা ভাবা উচিত - শেখ হাসিনা * স্বাগতম মাহে রমাজান * আরও দুই মামলায় খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানোর নির্দেশ * শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের সাঁইত্রিশ বছর ॥ কী পেল বাংলাদেশ * এ দেশ মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদদের উত্তরসূরিদের, রাজাকারের সন্তানদের নয় * দেশের কোথাও চাঁদ দেখা যায়নি, শুক্রবার রোজা শুরু * জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন বহাল * তালুকদার আব্দুল খালেক খুলনার মেয়র * রমজানে স্বাস্থ্যকর খাবার * কেসিসি নির্বাচনে আওয়ামীলীগ এগিয়ে: ২৮৯ কেন্দ্রের মাঝে ১৫২ কেন্দ্রে নৌকা ৮৯৮০৯ ধানের শীষ ৬০৭৭৫ ভোট * খুলনায় ভোট গ্রহণ চলছে, ভোট দিলেন খালেক ও মঞ্জু * এবার যমজ পুত্র সন্তানের জনক হলেন রেলমন্ত্রী * ডায়াবেটিস রোগীরা কি রোজা রাখবেন? * ১৫ বছরে নির্মাণ ব্যয়ের তিনগুণ টাকা উঠে আসবে * যে ব্যবস্থাপত্রে রোজা নষ্ট হয় না *
     01,2018 Thursday at 09:36:29 Share

ডিভি লটারি বন্ধ করে অভিবাসন নীতি ঘোষণা ট্রাম্পের

ডিভি লটারি বন্ধ করে অভিবাসন নীতি ঘোষণা ট্রাম্পের

মুহাম্মাদ মাসুম হাসান: মেধার ভিত্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব দেয়ার ওপর গুরুত্ব দিলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার (৩০ জানুয়ারি) ক্যাপিটল হিলে নিজের প্রথম স্টেট অব দ্য ইউনিয়ন বা বাৎসরিক ভাষণে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র নীতি, কর্মসংস্থানসহ বিভিন্ন বিষয়ের সঙ্গে অভিবাসী ইস্যুতে নিজের পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি। প্রায় ৮০ মিনিটের ঐ ভাষণে মার্কিনিদের স্বার্থ রক্ষায় সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। টেলিভিশনের পর্দায় তার এই ভাষণ দেখেন প্রায় ৪ কোটি মানুষ। ট্রাম্পের ভাষণের বড় অংশ জুড়েই ছিলো অভিবাসী ইস্যু। এ সময়, অভিবাসীদের নাগরিকত্ব দেয়া, অবৈধদের বৈধ করা ও ভিসা লটারি বন্ধ সহ বেশ কয়েকটি বিষয়ে ৪টি ধাপে নিজের পরিকল্পনার কথা প্রকাশ করেন ট্রাম্প।


প্রথম ধাপ:
যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত প্রায় ১৮ লাখ ড্রিমার্স বা অবৈধ অভিবাসী সন্তানদের নাগরিকত্ব দেয়ার বিষয়ে আগের কথাই বহাল রাখেন তিনি। নতুন ঘোষিত পরিকল্পনায় শিক্ষা ও প্রয়োজনীয় কর্মসংস্থান ছাড়াও নৈতিক চরিত্রের ওপর ভিত্তি করে এসব অভিবাসীকে নাগরিকত্ব দেয়ার কথা জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।
দ্বিতীয় ধাপ:
অপরাধ ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িতদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ ঠেকাতে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্ত বন্ধের প্রস্তাব করেন ট্রাম্প। মেক্সিকো সীমান্তে প্রাচীর নির্মাণের বিষয়ে নিজের আগের সিদ্ধান্তই বহাল রাখার পক্ষে মত দেন তিনি।


তৃতীয় ধাপ:
মেধা, দক্ষতা ছাড়াই যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ ও গ্রিনকার্ড পাওয়া ঠেকাতে ভিসা লটারি বন্ধের ঘোষণা দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ কর্মসূচির মাধ্যমে অদক্ষ অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ বন্ধ করে মেধার ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেয়ার ওপর জোর দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বাংলাদেশ, ব্রাজিল, কানাডা, চীন, কলম্বিয়া, ডোমিনিক প্রজাতন্ত্র, এল সালভাদর, ভারত, হাইতিসহ ১৮টি দেশ বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের ডাইভারসিটি ভিসা কর্মসূচির আওতার বাইরে আছে। এ কারণে লক্ষাধিক প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিনকার্ড পাচ্ছে না।
চতুর্থ ধাপ:
পরিবারভিত্তিক ধারবাহিক অভিবাসন বন্ধ করে একক পরিবার পদ্ধতি বজায় রাখার কথা বলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। গ্রিনকার্ডধারী কর্তৃক শুধুমাত্র স্বামী বা স্ত্রী ও সংখ্যালঘু শিশু ছাড়া অন্যদের স্পন্সরের বিষয়টি বাতিলের কথাও চিন্তা করছেন তিনি। শুধুমাত্র অর্থনীতি নয়, নিরাপত্তা ও ভবিষ্যতের জন্য এ পদ্ধতির সংস্কার খুবই জরুরি বলে মত দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সম্প্রতি নিউইয়র্কে দুটি সন্ত্রাসী হামলার বিষয় টেনে ট্রাম্প বলেন, চেইন মাইগ্রেশন বা ধারবাহিক অভিবাসন ব্যবস্থা ও ভিসা লটারির জন্যই এ ধরণের হামলার শিকার হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।
ভাষণে, সব আমেরিকানকে ড্রিমার্স উল্লেখ করে তাদের নিরাপত্তা, পরিবার, সম্প্রদায় ও স্বপ্ন দেখার অধিকার রক্ষায় আইনপ্রণেতাদের প্রতি আহ্বান জানান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বাৎসরিক গুরুত্বপূর্ণ এ ভাষণে অভিবাসী ছাড়াও পররাষ্ট্র নীতি নিয়েও কথা বলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে হতাশা জানিয়ে পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ করতে আবারও পিয়ংইয়ংকে হুঁশিয়ার করেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের ভূ-খণ্ড রক্ষায় কিম জং উনের সরকারের ওপর সর্বোচ্চ চাপ অব্যাহত রাখতে কংগ্রেসের প্রতি আহ্বান জানান ট্রাম্প।


মধ্যপ্রাচ্য ইস্যুতে ট্রাম্প বলেন, সিরিয়া ও ইরাকে আইএস জঙ্গিদের আমরা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এনেছি। তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকাগুলো উদ্ধারের দাবি করে ভবিষ্যতেও জঙ্গিবিরোধী অভিযান অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এসব স্থানে নিরাপত্তা ব্যবস্থা এখনো স্থিতিশীল হয়নি জানিয়ে সেনা প্রত্যাহারের সুর্নির্দিষ্ট কোন সময়সীমার গুরুত্ব নেই বলে মন্তব্য করেন তিনি।
কিউবায় অবস্থিত আলোচিত গুয়ান্তানামো বে কারাগার বন্ধের সিদ্ধান্ত থেকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সরে আসার ঘোষণাও দিয়েছেন তার স্টেট অব দ্য ইউনিয়নে। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বিতর্কিত এ কারাগার বন্ধের ঘোষণা দিলেও সেখান থেকে সরে আসলেন ট্রাম্প।
যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো উল্লেখ করে তার হাতে ২৪ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি। তার সরকারের হাতে শক্তিশালী, নিরাপদ ও গর্ব করার মতো যুক্তরাষ্ট্র নির্মিত হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর্থিক মন্দা পুরোপুরি কাটিয়ে উঠে তার সরকার নতুন করে ঘুরে দাড়িয়েছে বলে জানান ডোনাল্ড ট্রাম্প। পুরনো সব রাস্তাঘাট সংস্কারের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের অবকাঠামো নতুন করে সাজানোর কথাও বলেন তিনি। তবে এ নিয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি ট্রাম্প। খবরঃ weeklysandwip.com

User Comments

  • আন্তর্জাতিক