১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ৫:৪৪:৫৯
logo
logo banner
HeadLine
শেষ পর্যন্ত দফারফার কর্মসূচি * চাই দলীয় সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের নতুন ইতিহাস * বিএনপির ১৭৩ প্রার্থী প্রায় চূড়ান্ত, জোটের খসড়া তালিকা প্রকাশ * ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ঘোষনার দিন নির্ধারণ আজ * দলীয় সরকারের অধীনেও সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব - টিআইবি * নবম থেকে ত্রয়োদশ গ্রেডের সরকারী চাকুরীতে কোটা থাকছে না * সময়মতো এবং সুষ্ঠুভাবেই নির্বাচন হবে: ড. গওহর * ড্রাইভারের লাইসেন্স না থাকলে স্টার্ট নেবে না গাড়ি, হেলমেট ছাড়া মোটরবাইক * যাকে খুশি তাকে ভোট নয়: শাহরিয়ার কবির * লঘু অপরাধে আটকরা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মুক্তি পাচ্ছে * সংসদ ভেঙে নির্দলীয় সরকার গঠন অসাংবিধানিক: ওবায়দুল কাদের * আসনভিত্তিক নির্বাচন পরিচালনা কমিটি করবে আওয়ামীলীগ * জনগণ আবারও নৌকায় ভোট দেবে: শেখ হাসিনা * চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগে অসন্তোষ, হাইব্রিড ও নব্যদের কারণে অবহেলিত পরীক্ষিত নেতারা * এশিয়া কাপ ক্রিকেটের উদ্বোধনী ম্যাচ, প্রতিশোধ নয় লংকানদের বিপক্ষে জয় চান টাইগাররা * 'প্রবৃদ্ধি ছাড়াবে ৮ শতাংশ' * মানব উন্নয়ন সূচকে তিন ধাপ অগ্রগতি বাংলাদেশের * মুক্তিযোদ্ধারা বছরে পাঁচটি উৎসব ভাতা পাবেন * এমপিকে দেখে উপজেলা পরিষদের সভা বর্জন করলেন ইউপি চেয়ারম্যানরা * ভোটারের চোখে শেখ হাসিনাই বিশ্বস্ত * দেশকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে নিয়ে যাওয়াই সরকারের লক্ষ্য : প্রধানমন্ত্রী * সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে কমিশনকে সরকার প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিবে : শেখ হাসিনা * শেয়ার বাজারের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর ৭ দফা সুপারিশ * পৃথিবীর সব দেশের রাজধানীতে যানজটের সমস্যা রয়েছে : প্রধানমন্ত্রী * একনেকের সভায় ১৭ হাজার ৭৮৬ কোটি ৯৫ লাখ টাকার মোট ১৮ প্রকল্প অনুমোদন, অল্প সময়ের মধ্যে সন্দীপের সব জনগণ বিদ্যুত পাবে * বর্তমান ঋণখেলাপী ২ লাখ ৩০ হাজার ৬৫৮, ১০০ জনের তালিকা দিলেন অর্থমন্ত্রী * আমার ছোট আপা * উচ্চ শিক্ষা নিয়ে কেউ যেন অভিজাত বেকারে পরিণত না হয় * ইন্টারনেটের গুজব শনাক্তকরণ ও নিরসন কেন্দ্র * ভরসা রাখুন শেখ হাসিনায় *
     11,2018 Sunday at 07:23:05 Share

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের রেকর্ড গড়া জয়

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের রেকর্ড গড়া জয়

হারের বৃত্তে ঘুরপাক খেতে থাকা বাংলাদেশ অবশেষে রেকর্ড গড়া জয় পেয়েছে কলম্বোতে। গতকাল শনিবার ত্রিদেশীয় নিদাহাস ট্রফিতে বাংলাদেশ ২ বল হাতে রেখে ৫ উইকেটের এই রোমাঞ্চকর জয় তুলে নেয় স্বাগতিক শ্রীলংকার বিরুদ্ধে। প্রথম ম্যাচে ভারতের বিরুদ্ধে হেরে টিটোয়েন্টির এই ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু করেছিল টাইগাররা। গতকাল শ্রীলংকার বিরুদ্ধে ছিল তাদের বাঁচামরার লড়াই। সেই লড়াইয়ে বাংলাদেশ ম্যাচ জিতে নেয় মুশফিক, তামিম, লিটন, সৌম্যদের অসাধারণ ব্যাটিং নৈপুন্যে। তবে বিশেষভাবে বলতে হবে সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের কথা। তার অনবদ্য, অবিশ্বাস্য এবং দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ের কথা। টি–টোয়েন্টির ম্যাচে এটা বাংলাদেশের জন্য অভাবনীয় এবং অবিস্মরণীয় জয়। টি–টোয়েন্টিতে নিজেদের ইতিহাসের রেকর্ড গড়া জয়। এমন করে টি–টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ আগে ম্যাচ জেতেনি।


কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে নিদাহাস ট্রফির এই ম্যাচে ২১৫ রানের প্রায় অসম্ভব এক লক্ষ্য তাড়া করে ম্যাচ জিতেছে টাইগাররা। মুশফিকুর রহিমের ৩৫ বলে ৭২ রানের অবিশ্বাস্য এই ইনিংসে ঘরের মাঠে শ্রীলংকাকে হার মানতে বাধ্য করে। এর আগে টিটোয়েন্টিতে রান তাড়া তো নয়ই, দুশ রানও করতে পারেনি বাংলাদেশ। বাংলাদেশের দলীয় সর্বোচ্চ ইনিংসটি ছিল ৫ উইকেটে ১৯৩ রানের। গত মাসে ঢাকায় এই শ্রীলংকার বিপক্ষেই ওই রান করেছিল বাংলাদেশ। তবে টিটোয়েন্টিতে নিজেদের ওই সর্বোচ্চ রান করেও হেরেছিল টাইগাররা। এবার ছাড়িয়ে গেল সেই সংগ্রহ। শুধু তাই নয়, দুশর বেশি রান তাড়া করেও জয় দেখল বাংলাদেশ।


শ্রীলংকার কাছ থেকে ২১৫ রানের লক্ষ্য পেয়ে এবং তা তাড়া করতে নেমে বিধ্বংসী সূচনা করে বাংলাদেশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস। মার মার কাট কাট করে উদ্বোধনী জুটিতে ৫.৫ ওভারেই তারা তুলে ফেলেন ৭৪ রান। ১৯ বলে ২ চার আর ৫ ছক্কায় ৪৩ রান করে নুয়ান প্রদীপের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরে যান লিটন দাস। ভেঙে যায় বাংলাদেশের এই বিধ্বংসী জুটিটা। ফিফটির খুব কাছে চলে গিয়েছিলেন ওপেনার তামিম ইকবালও। ব্যাটে ঝড় চলছিল তার। হঠা করে কী যেন হলো। থিসারা পেরেরার বলটা বুঝতে পারলেন না। আর তার হাতেই ক্যাচ তুলে দেন এই ওপেনার। ২৯ বলে ৬ বাউন্ডারি আর এক ছক্কায় তার ৪৭ রানের ঝড়ো ইনিংসটা থেমেছে তাতেই।


তামিমের পর ফেরেন ব্যাটিং অর্ডার চেঞ্জ করে খেলতে নামা সৌম্য সরকার। ২২ বলে ২৪ রান তুলে ফার্নান্ডোর বলে তার হাতেই ক্যাচ দেন তিনি। মুশফিকুর রহিম খেলতে নেমে ২৪ বলে ফিফটি তুলে নেন। ৩৫ বলে অপরাজিত ৭২ রানের ইনিংসে মুশফিক ৫টি চার এবং ৪টি ছক্কা মারেন। দলকে জয় দেখানো মুশফিকের এই দুর্দান্ত ইনিংস তাকে ম্যাচ সেরার পুরস্কারও এনে দেয়। ১১ বলে ২০ রান করে আউট হন অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহ। বাংলাদেশ ইনিংসে রান পাননি রান আউট হয়ে যাওয়া সাব্বির। শ্রীলংকার ফার্নান্ডো ২টি, চামিরা এবং থিসেরা ১টি করে উইকেট নেন।


এর আগে বাংলাদেশকে ২১৫ রানের বড় লক্ষ্য ছুড়ে দেয় শ্রীলংকা। কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে লংকানরা প্রথমে ব্যাট করে ৬ উইকেটে ২১৪ রান করে। টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে শ্রীলংকা। উদ্বোধনী জুটিতে ৪.২ ওভারেই ৫৬ রান তুলে ফেলে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের শিষ্যরা। অবশেষে বিধ্বংসী এই জুটিটা ভাঙেন মোস্তাফিজুর রহমান। বাঁ হাতি এই পেসারের দ্বিতীয় ওভারের তৃতীয় বলে স্ট্যাম্পই উড়ে যায় ২৬ রান করা দানুষ্কা গুনাথিলাকার।


এরপর কুশল মেন্ডিস আর কুশল পেরেরা এই দুই কুশল মিলে বাংলাদেশি বোলারদের ওপর কুশলী তাণ্ডব চালান। দ্বিতীয় উইকেটে তারা গড়েন ৮৫ রানের জুটি। অবশেষে এই জুটিটি ভাঙেন অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহ। ইনিংসের ১৪তম ওভারে টাইগার অধিনায়কের বলে সাব্বির রহমানের ক্যাচ হয়ে ফেরেন ৩০ বলে ৫৭ করা কুশল মেন্ডিস। একই ওভারে দাসুন শানাকাকে শূন্য রানে আউট করে বাংলাদেশকে খেলায় ফেরান মাহমুদ উল্লাহ। এই ক্যাচটিও নেন সাব্বির। এরপর তাসকিন আহমেদের বলে আরেকটি দুর্দান্ত ক্যাচ ধরেন সাব্বির। এবার আউট ২ রান করা শ্রীলংকান অধিনায়ক চান্দিমাল। তবে দ্রশুত কয়েকটি উইকেট তুলে নিতে পারলেও লংকানদের রানের গতি আটকাতে পারেনি টাইগাররা। শেষ ওভারের দ্বিতীয় বলে মোস্তাফিজকে খেলতে গিয়ে বল উপরে তুলে দেন কুশল পেরেরা। উইকেট রক্ষক মুশফিকুর রহিমের ক্যাচ হয়ে ফেরেন ৪৮ বলে ৭৪ রান করা এই ব্যাটসম্যান। একই ওভারে এক বল পরই থিসারা পেরেরাকে শূন্য রানে নাজমুল অপুর ক্যাচ বানান মোস্তাফিজ। উপুল থারাঙ্গা অপরাজিত ছিলেন ১৫ বলে ৩২ রানে।


বাংলাদেশের মোস্তাফিজুর রহমান ৪৮ রানে নেন ৩ উইকেট। মাহমুদ উল্লাহ ১৫ রানে পান ২টি এবং তাসকিন আহমেদ ৪০ রান দিয়ে পান ১টি উইকেট। উইকেট পাননি রুবেল, মিরাজ, নাজমুল ও সৌম্য। টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহ। বৃষ্টির কারণে নির্ধারিত সময়ে টস হতে পারেনি। ১৫ মিনিট বিলম্বে টস হয়।

User Comments

  • খেলাধুলা