২৪ জুন ২০১৮ ২২:৪২:৫৯
logo
logo banner

Warning: Invalid argument supplied for foreach() in /home/sandwipnews/public_html/header_menu.php on line 154
HeadLine
     09,2018 Saturday at 04:41:30 Share

জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী কানাডায় পৌঁছেছেন

জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী কানাডায় পৌঁছেছেন

জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে যোগ দিতে কানাডায় গিয়ে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ ৯ জুন ওই সম্মেলন শুরু হচ্ছে। এতে অংশ নিতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও কয়েকটি দেশের সরকারপ্রধান ও কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধানকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে কানাডা সরকার। শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে রওনা হন। দুবাইয়ে যাত্রাবিরতি করে কানাডার স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল সোয়া ৯টায় তিনি টরন্টোর পিয়ারসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান। বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান কানাডায় বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল নাঈম উদ্দিন আহমেদ। টরন্টো থেকে এয়ার কানাডার একটি ফ্লাইটে শেখ হাসিনা যাবেন কেব্যাকে। কেব্যাকে পৌঁছানোর পর স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যায় সেখানকার গবর্নরের দেয়া নৈশভোজে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলন হবে শনিবার।


জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলন শুরু হচ্ছে আজ শনিবার। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও জি-টোয়েন্টি জোটের বর্তমান সভাপতি আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট; ক্যারিবিয়ান কমিউনিটির চেয়ার হাইতির প্রেসিডেন্ট; জ্যামাইকার প্রধানমন্ত্রী; কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট; মার্শাল আইল্যান্ডসের প্রেসিডেন্ট; নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী; আফ্রিকান ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ার রুয়ান্ডার প্রেসিডেন্ট; সেনেগালের প্রেসিডেন্ট; সেসেলসের প্রেসিডেন্ট; দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট; ভিয়েতনামের প্রধানমন্ত্রী; আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল-আইএমএফ-এর এমডি; অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কো-অপারেশন এ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (ওইসিডি) সেক্রেটারি জেনারেল; জাতিসংঘ মহাসচিব এবং বিশ্ব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর আগে ২০১৬ সালে জাপানে এবং ২০০১ সালে ইতালিতে জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে যোগ দেন। কানাডা ছাড়া জি-সেভেনের বাকি ছয় সদস্য দেশ হলো ফ্রান্স, জার্মানি, জাপান, ইতালি, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্ব অর্থনীতির সাত পরাশক্তির জোট জি-সেভেনের সম্মেলনের পাশাপাশি আঞ্চলিক উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক অগ্রগতির বিষয়ে আলোচনার জন্য জোটের বাইরে থেকে বিভিন্ন দেশকে আলাদা বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। একেই বলা হয় জি-সেভেন আউটরিচ মিটিং। এবারের আউটরিচ সম্মেলনে সমুদ্রকে দূষণ থেকে রক্ষা করা এবং উপকূলীয় এলাকার বাসিন্দাদের প্রতিকূলতা মোকাবেলার সক্ষমতা বৃদ্ধির উপায় খুঁজতে আলোচনা হবে।


সফরের তৃতীয় দিন রবিবার সকালে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে বৈঠকের পর টরন্টো যাবেন শেখ হাসিনা। সেখানে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। টরন্টো থেকে প্রধানমন্ত্রী দেশের উদ্দেশে রওনা হওয়ার আগে সোমবার সকালে কানাডার মিয়ানমার বিষয়ক দূত বব রে, কানাডার সাসকাচোয়ান প্রদেশের উপ-প্রধানমন্ত্রী জেরেমি হ্যারিসন এবং কমার্শিয়াল কো-অপারেশন অব কানাডার প্রেসিডেন্ট মার্টিন জাবলোকি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করবেন। কানাডার স্থানীয় সময় সোমবার দুপুরে টরন্টো থেকে দেশের পথে রওনা হবেন প্রধানমন্ত্রী। দুবাইয়ে যাত্রাবিরতি করে মঙ্গলবার রাতে তার ঢাকা পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

User Comments

  • জাতীয়