২১ আগস্ট ২০১৮ ১৪:৫:৩৭
logo
logo banner
HeadLine
কাল পবিত্র ইদ উল আযহা * কুরবানি কি ? কুরবানির গুরত্বপূর্ণ মাসয়ালা মাসায়েল * ২১ আগস্ট, রক্তাত্ত ২১ আগস্ট * তাকবীরে তাশরীক কি এবং কখন পড়তে হয় * বিমান বহরে যুক্ত হল বোয়িং ৭৮৭ 'আকাশবীণা' * কুরবানির জন্য সুস্থ ও ভালো পশু চেনার উপায় * আজ হজ, লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখরিত হবে আরাফাত ময়দান * সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা, সায়মা ওয়াজেদের কোনো আইডি নেই * চক্রান্ত চলছে, গোপন বৈঠক হচ্ছে, আমরাও প্রস্তুত আছি - কাদের * হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু : মিনায় যাচ্ছেন হাজিরা * খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফের সমাবেশ প্রাক্কালে সন্ত্রাসীদের গুলি, নিহত ৬ * কফি আনান আর নেই * মোটা তাজা কোরবানির পশু ও স্বাস্থ্য ঝুঁকি * গুজবই ভরসা , সরকার হটাতে বিরোধীদের অপচেষ্টা * নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বেশ কিছু নির্দেশনা * ডাক্তাররা রোগীকে মেরে ফেলতে চান না, তারা অনেক ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেন:প্রধানমন্ত্রী * জিলহজ মাসের আমলসমূহ * ডিসেম্বারের শেষ সপ্তাহে সংসদ নির্বাচন, তফসিল নবেম্বরের প্রথমে * সৌদি আরবে সড়ক দূর্ঘটনায় সন্দ্বীপের এক পিতা ৩ কন্যাসহ নিহত, মাতা ও ১ পুত্র আহত * বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহতের সঙ্গে জিয়া জড়িত ছিল : শেখ হাসিনা * বাংলাদেশে আর কোনদিন খুনীদের রাজত্ব আসবে না : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা * হেলিকপ্টারে পদ্মা সেতুর অগ্রগতি দেখছেন প্রধানমন্ত্রী * ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপেয়ির মৃত্যু * দেশীয় গরুতে কোরবানি * বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ অবিচ্ছেদ্য * সাগরে মৌসুমী নিম্নচাপ, ৩ নং সতর্ক সংকেত * সৌদি আরবে আরও ৫ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু * বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা * জিয়াই ছিলেন বঙ্গবন্ধু হত্যার মূল হোতা * মৃত্যুর মুখেও পিছু হটিনি - প্রধানমন্ত্রী *
     26,2018 Thursday at 20:04:41 Share

'নদীতে ফেলে দেওয়ার পরও জীবিত ছিল পায়েল, হাসপাতালে নিলে বাঁচানো যেতো'- মুন্সীগঞ্জের পুলিশ সুপার

'নদীতে ফেলে দেওয়ার পরও জীবিত ছিল পায়েল, হাসপাতালে নিলে বাঁচানো যেতো'- মুন্সীগঞ্জের পুলিশ সুপার

তড়িঘড়ি করে উঠতে গিয়ে বাসের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে আহত হওয়া নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাইদুর রহমান পায়েলকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে বাঁচানো যেতো বলে জানিয়েছেন মুন্সীগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. জায়েদুল আলম।


বৃহস্পতিবার (২৬ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান মো. জায়েদুল আলম। তিনি বলেন, ‘রবিবার (২১ জুলাই) দিনগত রাত ৪টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ভাটেরচর ব্রিজের কাছে যানজটে পড়ে বাস। এ সময় প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাস থেকে নিচে নামেন পায়েল। এরমধ্যেই যানজট কিছুটা ছাড়লে বাস এগোতে থাকে। পায়েল দৌড়ে এসে বাসে উঠতে গিয়ে নাকেমুখে আঘাত পান। সঙ্গে সঙ্গে পড়ে যান রাস্তায়। এ পর্যায়ে আহত পায়েলকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার বদলে মৃত ভেবে ভবেরচর ব্রিজ থেকে খালে ফেলে দেয় বাসটির চালক, সুপারভাইজার ও চালকের সহকারী। কিন্তু এ সময় যদি পায়েলকে স্থানীয় কোনও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হতো, তবে তাকে বাঁচানো যেতো।’


জায়েদুল আলম আরও বলেন, ‘ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন বলছে, খালে ফেলে দেওয়ার পরও পায়েল জীবিত ছিলেন। কারণ, তার পেটে প্রচুর পরিমাণ পানি ছিল।’


পুলিশ সুপার জানান, গত ২১ জুলাই রাত ১০টা ১৫ মিনিটের দিকে দুই বন্ধু মো. মহিউদ্দিন শান্ত (২২) ও হাকিমুর রহমান আদরের (২২) সঙ্গে চট্টগ্রাম থেকে হানিফ পরিবহনের একটি বাসে (ঢাকা মেট্রো-ব-৯৬৮৭) টাকার উদ্দেশে রওনা দেন পায়েল। পায়েল বাস থেকে নামার সময় তার এক বন্ধু পাশের সিটে ঘুমিয়ে ছিলেন ও অন্য বন্ধুও ঘুমিয়ে ছিলেন বাসের শেষের দিকের এক সিটে।


গত সোমবার (২৩ জুলাই) সকালে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর খাল থেকে চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার হরিশপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা ও বর্তমানে চট্টগ্রামের হালিশহরের বাসিন্দা কাতার প্রবাসী গোলাম মাওলার ছেলে সাইদুর রহমান পায়েলের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পরদিন মঙ্গলবার (২৪ জুলাই) বাসচালক জামাল হোসেন (৩৫) ও বাসের হেলপার ফয়সাল হোসেন (৩০) ও সুপারভাইজার জনিকে (৩৮) গ্রেফতার করা হয়। বুধবার সুপারভাইজার জনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। এর আগে মঙ্গলবার (২৪ জুলাই) পায়েলের মামা গোলাম সরওয়ার্দী বিপ্লব বাদী হয়ে গজারিয়া থানায় বাসচালক জামাল, সুপারভাইজার জনি ও হেলপার ফয়সালকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।


প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বলেন, ‘গ্রেফতার বাসচালক জামাল ও হেলপার ফয়সাল সম্পর্কে আপন ভাই। পায়েল হত্যার ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

User Comments

  • সন্দ্বীপ প্রতিদিন