২১ আগস্ট ২০১৮ ১৪:৫:৪৬
logo
logo banner
HeadLine
কাল পবিত্র ইদ উল আযহা * কুরবানি কি ? কুরবানির গুরত্বপূর্ণ মাসয়ালা মাসায়েল * ২১ আগস্ট, রক্তাত্ত ২১ আগস্ট * তাকবীরে তাশরীক কি এবং কখন পড়তে হয় * বিমান বহরে যুক্ত হল বোয়িং ৭৮৭ 'আকাশবীণা' * কুরবানির জন্য সুস্থ ও ভালো পশু চেনার উপায় * আজ হজ, লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখরিত হবে আরাফাত ময়দান * সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা, সায়মা ওয়াজেদের কোনো আইডি নেই * চক্রান্ত চলছে, গোপন বৈঠক হচ্ছে, আমরাও প্রস্তুত আছি - কাদের * হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু : মিনায় যাচ্ছেন হাজিরা * খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফের সমাবেশ প্রাক্কালে সন্ত্রাসীদের গুলি, নিহত ৬ * কফি আনান আর নেই * মোটা তাজা কোরবানির পশু ও স্বাস্থ্য ঝুঁকি * গুজবই ভরসা , সরকার হটাতে বিরোধীদের অপচেষ্টা * নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বেশ কিছু নির্দেশনা * ডাক্তাররা রোগীকে মেরে ফেলতে চান না, তারা অনেক ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেন:প্রধানমন্ত্রী * জিলহজ মাসের আমলসমূহ * ডিসেম্বারের শেষ সপ্তাহে সংসদ নির্বাচন, তফসিল নবেম্বরের প্রথমে * সৌদি আরবে সড়ক দূর্ঘটনায় সন্দ্বীপের এক পিতা ৩ কন্যাসহ নিহত, মাতা ও ১ পুত্র আহত * বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহতের সঙ্গে জিয়া জড়িত ছিল : শেখ হাসিনা * বাংলাদেশে আর কোনদিন খুনীদের রাজত্ব আসবে না : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা * হেলিকপ্টারে পদ্মা সেতুর অগ্রগতি দেখছেন প্রধানমন্ত্রী * ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপেয়ির মৃত্যু * দেশীয় গরুতে কোরবানি * বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ অবিচ্ছেদ্য * সাগরে মৌসুমী নিম্নচাপ, ৩ নং সতর্ক সংকেত * সৌদি আরবে আরও ৫ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু * বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা * জিয়াই ছিলেন বঙ্গবন্ধু হত্যার মূল হোতা * মৃত্যুর মুখেও পিছু হটিনি - প্রধানমন্ত্রী *
     07,2018 Tuesday at 08:10:08 Share

শতভাগ শিক্ষার্থী ক্লাসে ফিরেছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক

শতভাগ শিক্ষার্থী ক্লাসে ফিরেছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক

জনকন্ঠ।।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সাড়া দিয়ে ক্লাসে ফিরে গেছে নিরাপদ সড়কের দাবিতে সারাদেশে আন্দোলনে নামা শিক্ষার্থীরা। প্রায় শতভাগ শিক্ষার্থী আগের মতোই পাঠে মন দিয়েছে। ফলে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি এখন প্রায় পুরোপুরি স্বাভাবিক। রাস্তায় যানবাহন চলাচল প্রায় স্বাভাবিক হয়ে গেছে। সেই সঙ্গে স্বাভাবিক হয়ে গেছে মানুষের দৈনন্দিন জীবনযাত্রা। তবে সোমবার ঢাকার শাহবাগ, বসুন্ধরা আবাসিক এলাক ও রামপুরায় ইস্টওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি এলাকায় কিছু শিক্ষার্থী নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাস্তায় নেমে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছিল। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, ইটপাটকেল ও টিয়ারশেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। ঢাকায় কয়েকটি জায়গায় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় সাংবাদিক, পুলিশ, শিক্ষার্থী, পথচারীসহ নানা শ্রেণী পেশার অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন। পুলিশ তিন জনকে আটক করেছে। আন্দোলনের নামে রাস্তায় যানবাহন ভাংচুর, অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ঢাকার বিভিন্ন থানায ২৭টি মমালা হয়েছে। এসব মামলায় গ্রেফতার হয়েছে ১১ জন।


নিরাপদ সড়কের আন্দোলনের আড়ালে মাঠে শিবির, ছাত্রদল, কোটা সংস্কার আন্দোলন ও বামপন্থীদের একটি গ্রুপ নাশকতার চেষ্টা করছে ॥ গোয়েন্দা সূত্রগুলো বলছে, সোমবার নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাস্তায় নামা শিক্ষার্থীদের অধিকাংশ ছিল কোটা সংস্কার আন্দোলনে জড়িত শিক্ষার্থী, শিবির ও ছাত্রদলের নেতাকর্মী। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বাসভবনে স্মরণকালের ভয়াবহ হামলার পর কোটা সংস্কার আন্দোলন ভেস্তে গেলে তারা নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের ব্যানারে নতুন করে দেশে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করছে।


রামপুরায় বেসরকারী ইস্টওয়েস্ট ইউনিভার্সিটিতে সংঘর্ষ ॥ সোমবার সকাল দশটার দিকে রামপুরায় বেসরকারী ইস্টওয়েস্ট ইউনিভার্সিটিতে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সেখানে ছাত্রদের সঙ্গে থেমে থেমে সংঘর্ষ হয়। প্রায় আধঘণ্টা যাবত ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। ছাত্ররা গেটের বাইরে অবস্থান নিয়ে রাস্তাঘাট অবরোধ করার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।


বসুন্ধরায় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষ ॥ সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ শুরু করলে পুলিশের সঙ্গে ছাত্রদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। শিক্ষার্থীরা বেপরোয়া হয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করাসহ হামলা ও ভাংচুরের চেষ্টা করলে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।


শাহবাগে সংঘর্ষ ॥ এরপর সোমবার বেলা তিনটার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়সহ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষার্থী রাজধানীর শাহবাগে অবস্থান নেয়। তারা নিরাপদ সড়কের দাবিতে প্রথমে রাস্তা অবরোধ করে। এরপর যানবাহনে কাগজপত্র তল্লাশির নামে হয়রানি শুরু করে। পুলিশ বাধা দিলে শুরু হয় আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ। মুহূর্তেই পাল্টে যায় শাহবাগের চিত্র। যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যাওয়া রোগীরা পড়েন চরম বিপাকে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ওপর জলকামান থেকে গরম পানি টিয়ার ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে? ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ হোসাইন ইশাদী মাহমুদ ও আশরাফুল হক ইশতিয়াক নামে দুই ছাত্রসহ তিন ছাত্রকে আটক করে। তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এবং বামপন্থী রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। পরে মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের ভেতর দিয়ে ব্যানার নিয়ে পলাশী মোড়ে যায়। সেখানে বাধা পেয়ে আবার ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে।


ঘটনার বিষয়ে ডিএমপির রমনা বিভাগের ডিসি মারুফ হোসেন সরদার জানান, শাহবাগ এলাকায় দুটি বড় বড় হাসপাতাল রয়েছে। সেখানে রোগী ও সাধারণ মানুষের চরম ভোগান্তি হচ্ছিল। এজন্য পুলিশকে শক্ত হাতে পরিস্থিতি সামাল করতে হয়েছে। ছাত্রদের ইটপাটকেল পুলিশের কয়েক সদস্য আহত হয়েছেন। বিকেল পাঁচটা নাগাদ থেমে থেমে ছাত্রদের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে হ্যান্ডমাইকে ছাত্রদের শান্ত থাকার আহ্বান জানানো হয়।


শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ২৭ মামলা দায়ের, গ্রেফতার ১১ জন ॥ নিরাপদ সড়কের দাবিতে গত আটদিন ধরে চলা শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় সারাদেশে পাঁচ শতাধিক গাড়ি ভাংচুর হয়েছে বলে পরিবহন ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। ক্ষতি হয়েছে কয়েকশ’ কোটি টাকা। হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ঢাকার বিভিন্ন থানায় মোট ২৭টি মামলা হয়েছে। এসব মামলার আসামি হিসেবে গ্রেফতার করা হয়েছে ১১ জনকে। ডিএমপির উপ-কমিশনার (ক্রাইম) মুনতাসিরুল ইসলাম এ তথ্য জানান। তিনি আরও জানান, মামলা ও গ্রেফতারের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। হামলা ও ভাংচুরের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।


‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’ উত্থাপন করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল ॥ সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ উত্থাপন করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ।


 

User Comments

  • আরো