১৮ নভেম্বর ২০১৯ ১৮:২৪:২২
logo
logo banner
HeadLine
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আবুধাবির যুবরাজের সৌজন্য সাক্ষাত, আমিরাতের শ্রমবাজার খুলে দেয়ার ইঙ্গিত * শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন আতঙ্কের নাম বুলিং * ক্ষুদ্র ঋণের কাঙ্ক্ষিত সুফল মানুষ পায়নি : প্রধানমন্ত্রী * ডায়াবেটিস : সারা জনমের রোগ * শহীদ নূর হোসেনকে নিয়ে অপ্রীতিকর বক্তব্য দেওয়ার সংসদে দাঁড়িয়ে ক্ষমা চাইলেন রাঙ্গা * সব অপরাধীদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে : সংসদে প্রধানমন্ত্রী * ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তূর্ণা -ঊদয়ন সংঘর্ষ, নিহত ১৫ আহত শতাধিক * রোহিঙ্গা গণহত্যায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে গাম্বিয়ার মামলা * দূর্বল হয়ে পড়ছে 'বুলবুল', বন্দরসমূহে ৩ নং সতর্ক সংকেত * খুনীদের জন্য এত মায়া কান্না কেন * ভারতের মাঠে বাংলাদেশের প্রথম জয় * জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা শুরু * ২ থেকে ৭ নবেম্বর বিপ্লব নয়, ষড়যন্ত্র হয়েছিল * জুয়াড়ীদের সাথে কথোপকথনের জেরে দুই বছর নিষিদ্ধ সাকিব, অভিযোগ স্বীকার করায় এক বছরের নিষেধাজ্ঞা মওকুফ * অপরাধ করে কেউ পার পাবে না, ধরা হবে সবাইকে - প্রধানমন্ত্রী * ন্যাম সম্মেলনে যোগদান শেষে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী * ন্যাম সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী * নুসরাত হত্যায় সিরাজসহ অভিযুক্ত ১৬ জনেরই ফাঁসি * আলোচনা ফলপ্রসূ, আমরা খুশি, খেলায় ফিরছি: সাকিব * সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেটাররা, দাবি বেড়ে এখন ১৩টি * ক্রিকেটারদের দাবি মেনে নিতে আমরা প্রস্তুত বিসিবি * ১১ দফা দাবিতে ক্রিকেটারদের খেলা বর্জন * আরও ১টি সিটি কর্পোরেশন, ১টি পৌরসভা ও ৭টি থানার অনুমোদন * সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সরকারের শুদ্ধি অভিযান * ভারতের তুলনায় বাংলাদেশের অর্থনীতি সঠিক পথে - অভিজিৎ ব্যানার্জি * হৃদরোগ ও মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের মূল কারণ চিনি * সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থায় বাংলাদেশের অর্থনীতি * যুবলীগের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রবিবার, বৈঠকে থাকছেন না ওমর ফারুক চৌধুরী * পাপ পুণ্যের দানবে অসহায় মানুষ * র্যা গিংয়ের শিকার হলে নালিশ করুন, বিচার হবে : আইনমন্ত্রী *
     17,2019 Sunday at 19:43:17 Share

যেখানে জনক তুমি মৃত্যুঞ্জয়ী

যেখানে জনক তুমি মৃত্যুঞ্জয়ী

যেখানে জনক তুমি মৃত্যুঞ্জয়ী


আসাদ মান্নান

কোনো রাজমহল নয়


অনেক পুরনো


ভগ্নপ্রায়


একটা বনেদী বাড়ি।


তার এক কোণে


তৈরি হওয়া


একটা টিনের ঘর;


এ ঘরেই জন্ম নেন


একটা আলোর শিশু,


এক ভূমিপুত্র:


মায়ের প্রাণের ধন


বাবার চোখের মণি।


২.


দ্যাখো তো দ্যাখি


কী এক অবাক কা-ই না ঘটে গেল


বড় হয়ে একদিন


সবার আদুরে খোকা হয়ে গেল


প্রথমে শেখ সাহেব


তারপর বঙ্গবন্ধু;


পাহাড় ডিঙ্গিয়ে


ঝড়ে ও ঝঞ্ঝায়


নদী-নালা খাল-বিল


সমুদ্র পেরিয়ে


অতঃপর


এক নদী রক্তে


ভাসতে ভাসতে


আকাশ ছাড়িয়ে


গৌরবের অপার সৌরভ


ছড়াতে ছড়াতে


একদিন অপরাহ্ণে


এক বিরান বধ্যভূমিতে


দু’চোখে অশ্রু


দু’হাত শূন্য


খালি মুখে


শুধু


এক পৃথিবী ভালোবাসা


বুকে নিয়ে


সদীপ্ত পায়ে


দাঁড়ালেন তিনি এসে


স্বজন হারানো কোটি স্বজনের পাশে,


মহান জাতির মহান জনক-


বাঙালীর পিতা মুজিবুর!


৩.


অথচ একটা খুব


অবহেলিত পিছিয়ে থাকা


অজগাঁয়ে


আর দশটা শিশুর মতো


সাদামাটা


আটপৌরে


জন্ম যার,


শৈশব থেকেই


তার সঙ্গে ছিল


একরোখা দূরন্ত হাওয়ার


দারুন মিতালী।


খুব দুষ্ট প্রকৃতির


ডানপিঠে


মা-বাবার আদরের খোকা


কোনওরূপ বন্ধন ছাড়াই


যখন তখন


সদলে বেড়াত ঘুরে


এখানে ওখানে


নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে


উল্লাসে সাঁতার কাটত;


প্রিয় শখ:


গান আর খেলাধুলা।


৪.


দিন হাঁটে


সময়ের অদৃশ্য বাহনে


রাত্রি তার পিছে পিছে পিছে ছোটে


ঘড়ির কাঁটায়


দিনে দিনে বেড়ে ওঠে


লীডার মুজিব


নেতাজীর


স্বদেশী হাওয়ার গন্ধ


তার নাকে আসে


স্বাধীনতাহীনতার


দীনতার


নির্মম যাতনা


বাজে তার বুকের তন্ত্রীতে


দেশ-মানুষের মুক্তির মন্ত্রণা


তার চিত্তে


যে আগুন জা¡লে


অন্ধকারে


দুঃসহ নির্জন কারাবাস


শাসক জান্তার রক্তচক্ষু


পরশ্রীকাতর পাড়া-পড়শির


হরেকরকম ষড়য্ন্ত্র


কিছু কিংবা কেউ আর


সে-আগুন নিভাতে পারে নি।


৫.


তুমি নেই পিতা,


কিন্তু আছে


সবখানে


তোমার বিশাল ছায়া-


তাকে কেউ সরাতে পারে নি,


কী করে সরাবে!


তোমার দেখানো পথে উড়ে আজ


বিজয় পতাকা,


শূন্য থেকে মহাশূন্যে


আমাদের মহাযাত্রা;


তোমার নামেই


যে-আগুন আমরা জ্বেলেছি


জ্বলে স্থলে অন্তরীক্ষে


সে-আগুন অবিনাশী ,


চির অনির্বাণ-


এ আগুন কেউ আর


নিভাতে পারে না,


কী করে নিভাবে!


যেখানে জনক তুমি মৃত্যুঞ্জয়ী।
(জনকণ্ঠে প্রকাশিত)।

User Comments

  • আরো