২৩ এপ্রিল ২০২১ ১৩:১৬:২৩
logo
logo banner
HeadLine
২২ এপ্রিল ২০২১ : গেল ২৪ ঘন্টায় ১৪ দশমিক ৬৩ হারে শনাক্ত ৪২৮০, মৃত ৯৮, সুস্থ ৭২৬৬ * কার্বন নিঃসরণ হ্রাসে উন্নত দেশগুলোর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান * ২১ এপ্রিল ২০২১ : কমেছে সংক্রমণ , বেড়েছে সুস্থতা * দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন সোয়া ১৮ লাখ, প্রথম ডোজ সাড়ে ৫৭ লাখ এবং নিবন্ধন করেছেন সাড়ে ৭১ লাখের অধিক * এ বছর ফিতরা জনপ্রতি সর্বোচ্চ ২,১৩০ ও সর্বনিম্ন ৭০ টাকা * সুরক্ষায় মিলছে করোনা সার্টিফিকেট * ২০ এপ্রিল ২০২১ : ২৪ ঘন্টায় শনাক্ত ৪৫৫৯, মৃত ৯১, সুস্থ ৬৮১১ জন * ভ্যাকসিনের চাহিদা মেটাতে আন্তর্জাতিক সংস্থার কর্তৃত্বের ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর * ১৯ এপ্রিল ২০২১ : দেশে করোনায় একদিনে মৃত ১১২, যা দৈনিক সর্বোচ্চ * মামুনুল হকের ৭ দিনের রিমান্ড * মধ্যপ্রাচ্যের কিছু ফ্লাইট ছাড়া ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ * চলমান চলাচল বিধিনিষেধ ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত * হেফাজত নেতা মামুনুল হক গ্রেফতার * দেশের সবচেয়ে বড় কোভিড হাসপাতাল উদ্বোধন * ৫১ আলেম-ওলামার বিবৃতি,'হেফাজতে ইসলাম দেশে ফেতনা সৃষ্টিকারী ফাসেকের দল' *
     18,2021 Sunday at 05:01:03 Share

কালো টাকা সাদা করার সুযোগ বেড়েছে আরও

কালো টাকা সাদা করার সুযোগ বেড়েছে আরও

বাজেটে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ এবার আরো অবারিত করার প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। মাত্র ১০ শতাংশ কর দিয়ে অর্থনৈতিক অঞ্চল ও হাইটেক পার্কে অবস্থিত শিল্পে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ করা যাবে। এর আগে আবাসন খাতে নির্দিষ্ট পরিমাণ কর দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ ছিল।

এবার জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রেও এ সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। আর সব খাতেই প্রযোজ্য হারে কর ও এর ওপর ১০ শতাংশ জরিমানা দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থ বৈধ করার সুযোগ ছিল। তবে এবার অর্থনৈতিক অঞ্চল ও হাইটেক পার্কে অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা অপেক্ষাকৃত কম কর পরিশোধ করেই কালো টাকা বৈধ করতে পারবেন। অথচ বর্তমানে একজন নিয়মিত করদাতাকে সর্বোচ্চ ৩০ শতাংশ কর পরিশোধ করতে হয়।

মূলত নির্দিষ্ট কিছু খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে সরকার অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের এ সুযোগ দিয়েছে। তবে এর ফলে নিয়মিত কর পরিশোধকারীদের চাইতে অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা কম কর দিয়ে টাকা বৈধ করার সুযোগ পাওয়ায় নিয়মিত করদাতারা নিরুত্সাহিত হতে পারেন বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা। অন্যদিকে অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা আরো উত্সাহিত হতে পারেন।

আবাসন খাতে অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাব অনুযায়ী বিভিন্ন এলাকাভিত্তিক অপেক্ষাকৃত কম টাকা পরিশোধ করে অপ্রদর্শিত অর্থ বৈধ করা যাবে। প্রস্তাব অনুযায়ী গুলশান, বনানী, বারিধারা, মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকায় ও এগুলোর দুইশ বর্গমিটারের মধ্যে অ্যাপার্টমেন্ট বা ভবন ক্রয়ে প্রতি বর্গমিটারে বিদ্যমান কর সাত হাজার ও পাঁচ হাজার টাকার স্থলে পাঁচ হাজার ও চার হাজার টাকা হচ্ছে। এছাড়া এসব এলাকায় প্রতি বর্গমিটার জমিতে ১৫ হাজার টাকা কর দিয়ে বৈধ করা যাবে।

একইভাবে রাজধানীর অন্যান্য এলাকা, সিটি করপোরেশন ও পৌরসভায় অ্যাপার্টমেন্ট ক্রয়ে বিদ্যমান করের পরিমাণ কমছে। ওইসব এলাকায় জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট পরিমাণ কর দিয়ে টাকা বৈধ করা যাবে।

User Comments

  • ব্যবসা ওঅর্থনীতি