৭ জুন ২০২০ ৮:৩:৫৪
logo
logo banner
HeadLine
দেড় কোটি পরিবারকে সরকারের ত্রাণ সহায়তা * দশ খাতে সর্বোচ্চ বরাদ্দ , বাজেটে করোনা মোকাবেলা ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে বিশেষ গুরুত্ব * করোনাসংকটে অর্থনীতিকে চাঙ্গা রাখতে এ পর্যন্ত ১ লক্ষ ২ হাজার ৯৫৭ কোটি টাকার প্রণোদনা * ৬ জুন :দেশে আজ শনাক্ত ২৬৩৫, মৃত ৩৫ * ফিরে আসুন নাসিম ভাই * ৫ জুন : চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ১৪০, মৃত ৪ * কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবেলায় দ্রুত টিকা উদ্ভাবনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর * ৫ জুন :দেশে আজ শনাক্ত ২৮২৮, মৃত ৩০ * ৪ জুন : সন্দ্বীপের ৭ জন সহ চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ১৩২, মৃত ৩ * করোনা ভাইরাস থেকে জনগণকে সুরক্ষা দিতে সরকারের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে : প্রধানমন্ত্রী * ৪ জুন :দেশে আজ শনাক্ত ২৪২৩, মৃত ৩৫ * স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে আব্দুল মান্নানসহ ৫ মন্ত্রণালয়ে নতুন সচিব * বাংলাদেশ দুর্যোগ মোকাবেলার ক্ষেত্রে অন্যদের শিক্ষা দিতে পারে : প্রধানমন্ত্রী * সমুদ্র সম্পদের টেকসই ব্যবহারে প্রধানমন্ত্রীর তিন দফা প্রস্তাব পেশ * ৩ জুন : চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ১৪০ * ১১৩৪ জন মুক্তিযোদ্ধার সনদ বাতিল , অন্তরভুক্ত হলেন আরও ১২৫৬ * ৩ জুন :দেশে আজ শনাক্ত ২৬৯৫, মৃত ৩৭ * ২ জুন : চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ২০৬ * জনগণের কল্যাণের কথাই সরকার সবচেয়ে বেশি চিন্তা করছে : প্রধানমন্ত্রী * ২ জুন :দেশে আজ শনাক্ত ২৯১১, মৃত ৩৭ * ১ জুন : চট্টগ্রামে আজ শনাক্ত আরও ২০৮ * আক্রান্ত ও মৃত্যু অনুযায়ী সারা দেশকে বিভিন্ন জোনে ভাগ করে ব্যবস্থা নেয়ার পরিকল্পনা * সচিবালয়ে ২৫ শতাংশের বেশি কর্মকর্তার অফিস নয় * ১ জুন :দেশে আজ শনাক্ত ২৩৮১, মৃত ২২ * করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের ২ হাজার কোটি টাকা সুদ মওকুফের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর * ৩১ মে :দেশে সর্বোচ্চ শনাক্তের সাথে আজ মৃতও সর্বোচ্চ, শনাক্ত ২৫৪৫ মৃত ৪০ * এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮২.৮৭ * এখনই খুলছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠান : প্রধানমন্ত্রী * ভাড়া বাড়ছে না রেলের, সব টিকিট অনলাইনে * ৩০ মে: চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ২৭৯ *
     15,2020 Sunday at 07:34:57 Share

দেশে নতুন আক্রান্ত ২, করোনা ছড়ালো ১৪৯ দেশে, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৮১৪

দেশে নতুন আক্রান্ত ২, করোনা ছড়ালো ১৪৯ দেশে, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৮১৪

দেশে নতুন করে আরও দুই বাংলাদেশির শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে। এদের একজন ইতালি ও অন্যজন জার্মানী থেকে এসেছেন।


শনিবার (১৪ মার্চ) রাতে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। 


তিনি বলেন, আক্রান্ত দু’জনই বিদেশ ফেরত ও হোম কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। তাদের মধ্যে একজন ইতালি ও আরেকজন জার্মানি থেকে এসেছেন। আক্রান্ত দু’জনকেই হাসপাতালে রাখা হয়েছে। তাদের যা যা চিকিৎসা দেওয়া দরকার সেটা শুরু করেছি।


এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আজকেই তাদেরকে আমরা পেয়েছি এবং শনাক্ত হওয়ার পরই তাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে গেছি।


মন্ত্রী বলেন, আজকেও প্রায় দেড়শজন বিদেশ থেকে এসেছেন। তাদেরকে আশকোনা হজ ক্যাম্পে রেখেছি। তাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে এবং তারা সবাই সুস্থ আছেন।


তিনি আরও বলেন, তারা ইতালি থেকেই সার্টিফিকেট নিয়ে এসেছে যে, তারা সুস্থ আছেন। তাদের কাছ থেকে আমরা লিখিত নিয়ে বিভিন্ন পরিবহনে পুলিশ স্কটে যার যার এলাকায় পৌঁছে দেব। তারা যেন কোয়ারেন্টিনে থাকে সেই ব্যবস্থা করব।


ইতালিসহ ইউরোপের অন্যান্য দেশ থেকে রোববার আরও দেড়শজন আসছেন বলেও জানান মন্ত্রী।


এর আগে গত ৮ মার্চ তিনজনের করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ার কথা জানায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)।ওই তিনজনের দুইজন ছিলেন ইতালি প্রবাসী, অপরজন ছিলেন তাদের একজনের স্ত্রী। 


এদিকে, আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের ওয়েবসাইট অনুযায়ী এখন পর্যন্ত ১৪৯ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস। আক্রান্ত হয়েছে এক লাখ ৫৫ হাজার ৮১৮ জন মানুষ। এর মধ্যে প্রাণ হারিয়েছে ৫,৮১৪ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৭৩ হাজার ৭১০ জন। খবর এএফপি, বিবিসি, এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া, আলজাজিরা, সিএনএন, ইরনা, সৌদি প্রেস এজেন্সি, এনএইচকে, সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট, নাইন নিউজ, আল-আরাবিয়া, নিউইয়র্ক টাইমস ও ইয়াহু নিউজের।


 


চীনের উহান থেকে যে নতুন করোনাভাইরাস বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে তার প্রাণঘাতী রূপ এখন সবচেয়ে ভয়াবহ ইউরোপের দেশ ইতালিতে। সেখানকার সরকার গোটা দেশ অবরুদ্ধ করে রাখলেও শুক্রবার ইতালিতে ভাইরাসটির সংক্রমণে রেকর্ড সর্বোচ্চ ২৫০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সরকারী হিসাবেই এই তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ইতালিতে গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড আড়াই শ’ জনের প্রাণহানি ঘটায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা এখন ১ হাজার ২৬৬ জন। এছাড়া করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ হাজার ৬৬০ যা বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে ২ হাজার ৫৪৭ জন বেশি। এদিকে চীনা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের একটি দল করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহায়তা করতে ইতালি অবস্থান করছে।


স্পেনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ১৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৬৩১৩ জন। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ১০৮১ জন।


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর সব ধরনের আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল দুই সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছে সৌদি আরব। রবিবার থেকে দেশটিতে কোন আন্তর্জাতিক ফ্লাইট অবতরণ ও উড্ডয়ন করবে না। শনিবার দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ ঘোষণা দিয়েছে। মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রবিবার সৌদি আরবের সময় বেলা ১১টা থেকে বিমান চলাচল স্থগিত থাকবে। তবে বিশেষ ক্ষেত্রে কিছু ফ্লাইটের অনুমতি দেয়া হতে পারে।


ভারতে আরেকজনের মৃত্যু ঘটিয়েছে নোভেল করোনাভাইরাস। ইউরোপ ফেরত সন্তানের মাধ্যমে তার দেহে ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছিল। রাজধানী দিল্লীর বাসিন্দা ৬৮ বছর বয়সী এই নারী শুক্রবার মারা যান। করোনা আতঙ্কে সোমবার থেকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে সব সরকারী-বেসরকারী স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় ছুটি ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। প্রাথমিকভাবে ৩১ মার্চ পর্যন্ত স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা বন্ধ রাখা হবে জানা গেছে। তবে সূচী অনুযায়ী শেষ হবে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী জানিয়েছেন, ৩০ মার্চ বৈঠক করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। পাশাপাশি সবাইকে সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। এদিকে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার করোনাভাইরাসকে দুর্যোগ ‘নোটিফায়েড ডিজাস্টার’ বলে ঘোষণা করেছে। ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক ঘোষণায় একথা জানিয়েছে। পাশাপাশি মৃতদের পরিবারপিছু ৪ লাখ রুপী করে আর্থিক সাহায্যের কথাও ঘোষণা করা হয়েছে। ভারতে করোনায় আক্রান্ত সংখ্যা বেড়ে ৮৩ জনে দাঁড়িয়েছে। দেশটিতে আক্রান্তদের মধ্যে ৬৬ জন ভারতীয় নাগরিক এবং ১৭ জন বিদেশী (১৬ জন ইতালীয়, ১ জন কানাডিয়ান)। অন্যদিকে, দিল্লী ও হরিয়ানায় করোনাকে মহামারী ঘোষণা করেছে ওই দুই রাজ্যের সরকার। পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গ, রাজস্থান, মহারাষ্ট্র ও কর্নাটকেও সব স্কুল, সুইমিংপুল, জিম, প্রেক্ষাগৃহ, পার্ক বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশিকা জারি করেছে এসব রাজ্যের সরকার। এদিকে সম্প্রতি করোনা আক্রান্ত দেশ থেকে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে ফিরেছেন ৬৬৬ জন। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, এদের মধ্যে ৫৬৪ জনকে পর্যবেক্ষণের আওতায় নেয়া হলেও বাকি ১০২ জনের খোঁজ মিলছে না। এই তথ্য ছড়িয়ে পড়তেই অন্ধ্রে করোনা আতঙ্ক জেঁকে বসেছে। করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত ভারতে আক্রান্ত হয়েছে ৮৩ জন।


করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ইরানের প্রভাবশালী এক সেনা কমান্ডার। আইআরজিসি মুখপাত্র রামিজান শরিফ জানিয়েছেন, শুক্রবার ইরানের বিপ্লবী গার্ডস বাহিনীর (আইআরজিসি) সিনিয়র কমান্ডার নাসের শাবানির মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনায় তাদের বাহিনীর পাঁচ সদস্যের মৃত্যু হলো। ইরানী বার্তা সংস্থা ফার্স জানিয়েছে, ১৯৮২ সালে ইরাক-ইরান যুদ্ধের সময় ক্যারিয়ার শুরু করেন নাসের শাবানি। এদিকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে ইরানে একদিনে আরও ৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৬১১ জনে। এছাড়া দেশটিতে আক্রান্তের মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ৭৯২ জনে। শনিবার ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এ তথ্য জানিয়েছে।


নোভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপে চীন যখন মহামারীর সঙ্গে ঝুঁকছে, সেই সময়ই সপরিবারে ভারতে এসেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তখন করোনা আতঙ্ককে বিশেষ আমল না দিলেও প্রাণঘাতী কোভিড-১৯ ভাইরাসের আতঙ্কেই এখন আতঙ্কিত হোয়াইট হাউস। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে যে, নিজে থেকেই ডাক্তারী পরীক্ষা করাতে উদ্যোগী হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর বাড়ি থেকেই যাবতীয় কাজ সারার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তার উপদেষ্টা কন্যা ইভাঙ্কা ট্রাম্প। নোভেল করোনার জেরে শুক্রবারই দেশে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার পরই নিজেও ডাক্তারী পরীক্ষা করাবেন বলে জানান তিনি। হোয়াইট হাউসের ‘রোজ গার্ডেনে’ দাঁড়িয়ে সংবাদমাধ্যমকে ট্রাম্প বলেন, এখনও পর্যন্ত করোনার উপসর্গ দেখা দেয়নি তার। তবে খুব শীঘ্রই নিজের ডাক্তারী পরীক্ষা করাবেন তিনি। যদিও একদিন আগেই হোয়াইট হাউসের তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে জানানো হয়, ট্রাম্পের ডাক্তারী পরীক্ষার কোন প্রয়োজন নেই। তা হলে আচমকা কেন মত পাল্টালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট? সেই নিয়ে নানা জল্পনা শুরু হয়েছে। হোয়াইট হাউস সূত্রে জানা গেছে, গত সপ্তাহে ফ্লোরিডার পাম বিচের ‘মার-এ-লাগো’ রিসোর্টে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো, তার প্রেস সচিব ফ্যাবিও ওয়াজনগার্টেন এবং সে দেশের রাষ্ট্রদূত নেস্টর ফোরস্টারের সঙ্গে পাশাপাশি বসে নৈশভোজ সারেন ট্রাম্প। দেশে ফিরে প্রথমেই অসুস্থ হয়ে পড়েন ফ্যাবিও। তার শরীরে করোনা ধরা পড়ে। এর পর নেস্টরের শরীরেও সংক্রমণ ধরা পড়ে। তাতেই নাকি ভয় পেয়ে গিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। একইভাবে, দিন কয়েক আগেই মার্কিন সফর সেরে দেশে ফেরেন অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পিটার ডাটন। ওয়াশিংটনে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে সোশ্যাল মিডিয়ায় শিশু নিগ্রহ রোখা নিয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্পের সঙ্গে কথা হয় তার। কিন্তু দেশে ফিরেই অসুস্থ হয়ে পড়েন ডাটন। শুক্রবার একটি বিবৃতি প্রকাশ করে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কথা জানান তিনি। তাতেই উদ্বেগ বেড়েছে ইভাঙ্কার। তাই নিরাপত্তার স্বার্থে আপাতত কিছুদিন বাড়ির বাইরে পা না রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।


জাপানে করোনাভাইরাসে ১ হাজার ৪২৩ জন আক্রান্ত হয়েছে। শনিবার দেশটির রাষ্ট্রীয় প্রচার মাধ্যম জানিয়েছে, পশ্চিমাঞ্চলীয় নাগাসাকিতে প্রথম কারও করোনায় আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। এর মধ্যে জাপানে নোঙ্গর করা ডায়মন্ড প্রিন্সেস প্রমোদতরীর ৬৯৭ যাত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এছাড়া চীন ফেরত ১৪ জনের করোনায় আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। এখন পর্যন্ত জাপানে ২৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।


দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন করে আরও ১০৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। ফলে দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজার ৮৬ এবং ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে। অপরদিকে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ২০৪ জন।


কাতারে নতুন করে আরও ৫৮ জনের করোনা আক্রান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এর ফলে দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩২০ জনে। তবে এ ভাইরাসে কাতারে এখনও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। আক্রান্তদের সবাই চিকিৎসাধীন রয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশটিতে কেউ সুস্থ হয়েছে বলে খবর পাওয়া যায়নি।


চীন নোভেল করোনাভাইরাস অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আনলেও এখন বিপর্যয়ের আঁতুরঘর হয়ে উঠেছে ইউরোপ। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন মাত্র ১১ জন আর যে ১৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে তারা সবাই হুবেই প্রদেশের বাসিন্দা বলে জানিয়েছে দেশটির ন্যাশনাল হেলথ কমিশন।


যুক্তরাজ্যে সদ্যজাত এক শিশু নতুন করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট রোগ কোভিড-১৯ এ সংক্রমিত হয়েছে। শিশুটি এই মহামারীতে বিশ্বের কনিষ্ঠ করোনা রোগী বলে দেশটির একটি দৈনিক জানিয়েছে। লন্ডনের ইংরেজী দৈনিক দ্য মেট্রোর এক প্রতিবেদন বলছে, কয়েকদিন আগে এই শিশুটির মাকে নর্থ মিডলসেক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিউমোনিয়ায় ভুগছেন এমন সন্দেহ থেকে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।


এশিয়া, ইউরোপ, আমেরিকার পর এবার আফ্রিকা আর মধ্যপ্রাচ্যের বিশাল অংশজুড়ে ছড়িয়ে পড়ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। শনিবার আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়। করোনার প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকে যেন অনেকটা বেঁচেই যাচ্ছিল দুঃখ-দুর্দশায় বিপন্ন আফ্রিকা। পৃথিবীর আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে পড়লেও এ মহাদেশটিকে অনেকটা ছাড় দিয়ে চলছিল করোনা। কিন্তু এবারে ওই অঞ্চলের দিকেও থাবা বাড়াতে শুরু করেছে এ ভাইরাস। এরই মাঝে আফ্রিকার ১৯টি দেশ এতে আক্রান্ত হয়েছে। গত কয়েকদিনে কেনিয়া, ইথিওপিয়া, সুদান, মৌরিতানিয়া ও গিনি নিজেদের দেশে প্রথম করোনা আক্রান্তের ব্যাপারে নিশ্চিত করেছে।


নিউজিল্যান্ডে প্রবেশ করলে প্রত্যেককেই ১৪ দিনের জন্য আইসোলেশনে থাকতে হবে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্ন শনিবার এক ঘোষণায় এ কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, রবিবার মধ্য রাত থেকে নিউজিল্যান্ডে প্রবেশকারী সবাইকে ১৪ দিনের জন্য ‘সেলফ আইসোলেশনে’ থাকতে হবে। দেশজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রকোপ যেন ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্যই এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। তবে এই নির্দেশনার আওতায় থাকবে না দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জের দেশগুলো। কারণ সেখানে এখনও কারও করোনাভাইরাসে আক্রান্তের খবর পাওয়া যায়নি। অপরদিকে, নিউজিল্যান্ডের কোন প্রমোদতরীকে আগামী ৩০ জুনের আগ পর্যন্ত দেশে না ফেরার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।


করোনাভাইরাসের প্রভাব বিস্তার রোধে কুয়েতে মসজিদে জুমার নামাজ ও ওয়াক্ত নামাজ জামাতে আদায় সাময়িক বন্ধ করছে কুয়েত প্রশাসন। মসজিদগুলো আজান দেয়া হবে, মুসল্লিদের নিজ নিজ বাসায় নামাজ আদায় করতে বলা হয়েছে। শুক্রবার কুয়েতের আওকাফ মন্ত্রণালয়ে ফতোয়া কমিটির বৈঠকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিষয়াদি পর্যালোচনা করে বিভিন্ন আলেম দ্বারা গঠিত কমিটি মসজিদে জুমা ও ওয়াক্তের নামাজ সাময়িক স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।


করোনাভাইরাস বিস্তারের শঙ্কায় ‘অন-এ্যারাইভাল ভিসা’ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে নেপাল। শুক্রবার নিজেদের ওয়েবসাইটে এক বিজ্ঞপ্তিতে এই ঘোষণা দেয় নেপাল সরকার। এর আগে ভারত, ভুটান, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কাও ‘অন এ্যারাইভাল ভিসা’ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিল। নেপাল সরকারের এই নিষেধাজ্ঞা ১৪ মার্চ থেকে কার্যকর হবে। আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে বলে ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।


সারা দুনিয়া ছেয়ে আছে করোনার কালো মেঘে। এই পরিস্থিতির মধ্যে ব্যাপক আশার খবর দিচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কারের পথে যুগান্তকারী অগ্রগতির দাবি জানিয়েছেন তারা। কানাডার সানিব্রুক গবেষণা সংস্থা, টরেন্টো ইউনিভার্সিটি ও ম্যাকমাস্টার ইউনিভার্সিটির একদল বিজ্ঞানী ও গবেষক জানিয়েছেন, এরই মধ্যে তারা করোনাভাইরাসের গঠন কাঠামো আলাদা করতে ও তার প্রতিলিপি তৈরিতে সক্ষম হয়েছেন। এই প্রতিলিপির মাধ্যমে বড় আকারে করোনাভাইরাসের জীবতত্ত্ব বুঝে ওঠা যাবে। আর তা এ ভাইরাস শনাক্তকরণ, নিরাময় ও প্রতিষেধক আবিষ্কারে ব্যাপক সহায়তা করবে। শুক্রবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম এক প্রতিবেদন এ তথ্য জানায়। জনকণ্ঠ।

User Comments

  • আরো