২৭ নভেম্বর ২০২০ ২২:২৭:০৬
logo
logo banner
HeadLine
ক্যান্সার ও করোনার কাছে হেরে গেলেন আলী যাকের, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক * মেধা, জ্ঞান, বুদ্ধি ও মননকে দেশের কাজে লাগাতে সরকারি কর্মচারিদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর * ২৬ নভেম্বার : দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা সাড়ে ৬ হাজার ছাড়িয়েছে, সুস্থ ৩,৭১,৪৫৩ জন * সব শ্রেণিতে ভর্তি এবার লটারিতে * বিদায় দিয়েগো আর্মান্দো ম্যারাডোনা * ২৫ নভেম্বার : দেশে শনাক্ত আরও ২১৫৬, মারা গেছেন ৩৯ জন, সুস্থ ২,৩০২ * অন্ধ্র ও তামিলনাড়ুর দিকে আগাচ্ছে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় 'নিভার' * ১০ হাজার ৭শ' কোটি টাকার ৭টি প্রকল্প একনেকে অনুমোদন * ২৪ নভেম্বার : দেশে করোনা সংক্রমণ সাড়ে ৪ লাখ ছাড়িয়েছে, সুস্থ ৩,৬৬,৮৭৭ * বাধ্যতামূলক মাস্ক ব্যবহারে আরো কঠোর হতে পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার * ২৩ নভেম্বার : দেশে শনাক্ত আরও ২৪১৯, মারা গেছেন ২৮, সুস্থ ২১৮৩ জন * ২৫ পৌরসভার নির্বাচন ২৮ ডিসেম্বর * মূর্তি বা ভাস্কর্য মানেই শিরকের উপকরণ নয়: হাফেজ মাওলানা জিয়াউল হাসান * ২২ নভেম্বার : দেশে আজ শনাক্ত ২০৬০, মারা গেছেন ৩৮, সুস্থ ২০৭৬ জন * অক্সফোর্ডের গবেষণা : ছয় মাসের মধ্যে দ্বিতীয়বার সংক্রমণের সম্ভাবনা নেই *
     21,2020 Saturday at 18:25:47 Share

দেশে প্রচুর খাদ্য মজুদ আছে, অহেতুক আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে বেশি কিনবেন না - প্রধানমন্ত্রী

দেশে প্রচুর খাদ্য মজুদ আছে, অহেতুক আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে বেশি কিনবেন না - প্রধানমন্ত্রী

সরকারি গুদামে প্রচুর খাদ্য-দ্রব্য মজুদ রয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অহেতুক আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে বেশি কিনবেন না। যার যতটুকু প্রয়োজন সেটুকুই সংগ্রহ করুন। আতঙ্কিত হয়ে বাজারের ওপর চাপ সৃষ্টি করবেন না।

শনিবার (২১ মার্চ) সকালে রাজধানীর সিটি কলেজ কেন্দ্রে ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ শেষে এ কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি খুব পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আমাদের খাদ্যদ্রব্যের কোনো সমস্যা নাই। এখনও ১৭ লাখ মেট্রিক টন খাদ্য সরকারি গুদামেই মজুদ আছে। সাড়ে ৩ লাখ মেট্রিক টন গম আমাদের মজুদ আছে। এছাড়া আমাদের বেসরকারি রাইস মিলের কাছেও প্রচুর পরিমাণে খাদ্য মজুদ আছে।’ 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এছাড়াও সারা বাংলাদেশের বড় কৃষকদের কাছেও ধান, চাল মজুদ আছে। আমাদের ক্ষেতে ফসল আছে, কৃষক ফসল ফলাচ্ছেন। তরকারি, শাক-সবজি আমাদের প্রচুর উৎপাদন হচ্ছে।’

সবাইকে প্রয়োজনের বেশি পণ্য না কেনার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আতঙ্কগ্রস্ত না হয়ে যার যতটুকু প্রয়োজন সেইটুকু আপনারা সংগ্রহ করেন। এ কারণে বাজারের ওপর চাপ সৃষ্টি করা হলে বাজারে জিনিসের দাম বেড়ে যায়। এতে যার টাকা আছে তিনি হয়তো কিনতে পারছেন কিন্তু যারা সীমিত আয়ের তাদের জন্যতো এত কেনা সম্ভব না, তাদের কষ্ট হয়ে যায়। অন্যকে এভাবে কষ্ট দেয়ার অধিকার কারো নাই।’

বাজার মনিটরিং বাড়াতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়ে শেখ হাসিনা বাজার নিয়ন্ত্রণে নজরদারির জন্য সাধারণ মানুষের প্রতিও আহ্বান জানান।

এ ছাড়া গ্রামে নিজ বাড়িতে ফিরে যাওয়া ব্যক্তিদের প্রধানমন্ত্রী গ্রামের জমিতে ফসল ও তরকারি ফলানোর পরামর্শ দেন।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সবাইকে আশস্ত করে প্রধানমন্ত্রী জানান, তিনি ইতোমধ্যেই অর্থমন্ত্রী, অর্থ সচিব, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরসহ সবার সঙ্গে বৈঠক করেছেন। আগামী এক বছরের খাবার কেনার সামর্থ্য বাংলাদেশের আছে।

এ সময় অন্যদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল, ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

User Comments

  • জাতীয়