১৯ জানুয়ারি ২০২১ ১৩:৪৭:৩২
logo
logo banner
HeadLine
১৮ জানুয়ারী : দেশে নতুন শনাক্ত ৬৯৭, মারা গেছেন ১৬, সুস্থ ৭৩৬ জন * বছরের প্রথম অধিবেশন শুরু, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ নির্মূলে আরও ঐক্যবদ্ধ হতে আহবান জানালেন রাষ্ট্রপতি * জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৯' প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী * সন্দ্বীপে মোক্তাদের মাওলা সেলিমসহ দ্বিতীয় ধাপের ৬০ পৌর নির্বাচনে মেয়র হলেন যারা * বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে আবদুল কাদের মির্জা জয়ী * ১৬ জানুয়ারী : আজ করোনায় শনাক্ত ৫৭৮, মৃত ২১, সুস্থ ৬৩৩ * ভারতে করোনার টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন * সন্দ্বীপসহ ৬০ পৌরসভার ভোটগ্রহণ সম্পন্ন, চলছে গণনা * চলতি মাসেই আসছে ভ্যাক্সিন, প্রয়োগে প্রস্তুত ৪২ হাজার কর্মী * ১৪ জানুয়ারী : দেশে ২৪ ঘন্টায় নতুন শনাক্ত ৮১৩, মৃত্যু ১৬, সুস্থ ৮৮৩ * কমতে পারে তাপমাত্রা, অব্যাহত থাকবে শৈত্যপ্রবাহ * জন্ম নিবন্ধনে ফিঙ্গার প্রিন্ট বাধ্যতামূলক করা প্রশ্নে হাইকোর্ট রিট * আমার সরকার মানুষের সেবক, বিভিন্ন ভাতা উপকারভোগীর মোবাইলে প্রেরণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী * ১৩ জানুয়ারী : দেশে ২৪ ঘন্টায় শনাক্ত ৮৯০, মৃত্যু ১৪, সুস্থ ৮৪১ জন * চসিক নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ১, বিদ্রোহী প্রার্থী কাদেরসহ আটক ১৯ *
     13,2021 Wednesday at 10:56:59 Share

দেশে প্রচুর খাদ্য মজুদ আছে, অহেতুক আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে বেশি কিনবেন না - প্রধানমন্ত্রী

দেশে প্রচুর খাদ্য মজুদ আছে, অহেতুক আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে বেশি কিনবেন না - প্রধানমন্ত্রী

সরকারি গুদামে প্রচুর খাদ্য-দ্রব্য মজুদ রয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অহেতুক আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে বেশি কিনবেন না। যার যতটুকু প্রয়োজন সেটুকুই সংগ্রহ করুন। আতঙ্কিত হয়ে বাজারের ওপর চাপ সৃষ্টি করবেন না।

শনিবার (২১ মার্চ) সকালে রাজধানীর সিটি কলেজ কেন্দ্রে ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ শেষে এ কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি খুব পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আমাদের খাদ্যদ্রব্যের কোনো সমস্যা নাই। এখনও ১৭ লাখ মেট্রিক টন খাদ্য সরকারি গুদামেই মজুদ আছে। সাড়ে ৩ লাখ মেট্রিক টন গম আমাদের মজুদ আছে। এছাড়া আমাদের বেসরকারি রাইস মিলের কাছেও প্রচুর পরিমাণে খাদ্য মজুদ আছে।’ 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এছাড়াও সারা বাংলাদেশের বড় কৃষকদের কাছেও ধান, চাল মজুদ আছে। আমাদের ক্ষেতে ফসল আছে, কৃষক ফসল ফলাচ্ছেন। তরকারি, শাক-সবজি আমাদের প্রচুর উৎপাদন হচ্ছে।’

সবাইকে প্রয়োজনের বেশি পণ্য না কেনার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আতঙ্কগ্রস্ত না হয়ে যার যতটুকু প্রয়োজন সেইটুকু আপনারা সংগ্রহ করেন। এ কারণে বাজারের ওপর চাপ সৃষ্টি করা হলে বাজারে জিনিসের দাম বেড়ে যায়। এতে যার টাকা আছে তিনি হয়তো কিনতে পারছেন কিন্তু যারা সীমিত আয়ের তাদের জন্যতো এত কেনা সম্ভব না, তাদের কষ্ট হয়ে যায়। অন্যকে এভাবে কষ্ট দেয়ার অধিকার কারো নাই।’

বাজার মনিটরিং বাড়াতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়ে শেখ হাসিনা বাজার নিয়ন্ত্রণে নজরদারির জন্য সাধারণ মানুষের প্রতিও আহ্বান জানান।

এ ছাড়া গ্রামে নিজ বাড়িতে ফিরে যাওয়া ব্যক্তিদের প্রধানমন্ত্রী গ্রামের জমিতে ফসল ও তরকারি ফলানোর পরামর্শ দেন।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সবাইকে আশস্ত করে প্রধানমন্ত্রী জানান, তিনি ইতোমধ্যেই অর্থমন্ত্রী, অর্থ সচিব, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরসহ সবার সঙ্গে বৈঠক করেছেন। আগামী এক বছরের খাবার কেনার সামর্থ্য বাংলাদেশের আছে।

এ সময় অন্যদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল, ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

User Comments

  • জাতীয়