৩১ জুলাই ২০২১ ১৫:৪৩:২৪
logo
logo banner
HeadLine
জাপান থেকে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ৭ লাখ ৮১ হাজার টিকা আসছে আজ * ৩০ জুলাই ২০২১ : পরীক্ষা ৪৫০৪৪, শনাক্ত ১৩৮৬২, মৃত ২১২, সুস্থ ১৩৯৭৫ * ১ আগস্ট থেকে রফতানিমুখী শিল্প কারখানা খোলার অনুমতি * বেলাল মোহাম্মদ এর ৮ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ * ৩০ জুলাই ২০২১: চট্টগ্রামে ৩৭.৩৭ হারে শনাক্ত ১৪৬৬, মৃত ৯ জন * সিনোফার্মের আরও ৩০ লাখ ডোজ টিকা আসছে রাতে * ২৯ জুলাই ২০২১ : পরীক্ষা ৫২২৮২, শনাক্ত ১৫৯৮২, মৃত ২৩৯, সুস্থ ১৪৩৩৬ * ডেঙ্গু মোকাবিলায় বিশেষজ্ঞ পরামর্শ অনুসরণের আহ্বান * কোভিড সংকটের মাঝে বাড়ছে ডেঙ্গু , গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড শনাক্ত ১৯৪ * ২৫ হলেই নেওয়া যাচ্ছে করোনার টিকা, ৮ আগস্ট থেকে নিতে পারবেন ১৮ বছর বয়সীরাও * ২৯ জুলাই ২০২১: চট্টগ্রামে ৩৭.৪১ হারে শনাক্ত ১৩১৫, মৃত ১৭ জন * ২৮ জুলাই ২০২১ : পরীক্ষা ৫৩৮৭৭, শনাক্ত ১৬২৩০, মৃত ২৩৭, সুস্থ ১৩৪৭০ * ২৮ জুলাই ২০২১: চট্টগ্রামে ৩২.৭৭ হারে শনাক্ত ৯১৫, মৃত ১৭ জন * ২৭ জুলাই ২০২১ : সর্বোচ্চ পরীক্ষার দিনে মৃত্যুও সর্বোচ্চ, পরীক্ষা ৫২৪৭৮, শনাক্ত ১৪৯২৫, মৃত ২৫৮ * ৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে করোনা টিকাদান কার্যক্রম শুরু *
     27,2021 Tuesday at 19:28:13 Share

কালো টাকা সাদা করার সুযোগ বেড়েছে আরও

কালো টাকা সাদা করার সুযোগ বেড়েছে আরও

বাজেটে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ এবার আরো অবারিত করার প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। মাত্র ১০ শতাংশ কর দিয়ে অর্থনৈতিক অঞ্চল ও হাইটেক পার্কে অবস্থিত শিল্পে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ করা যাবে। এর আগে আবাসন খাতে নির্দিষ্ট পরিমাণ কর দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ ছিল।

এবার জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রেও এ সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। আর সব খাতেই প্রযোজ্য হারে কর ও এর ওপর ১০ শতাংশ জরিমানা দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থ বৈধ করার সুযোগ ছিল। তবে এবার অর্থনৈতিক অঞ্চল ও হাইটেক পার্কে অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা অপেক্ষাকৃত কম কর পরিশোধ করেই কালো টাকা বৈধ করতে পারবেন। অথচ বর্তমানে একজন নিয়মিত করদাতাকে সর্বোচ্চ ৩০ শতাংশ কর পরিশোধ করতে হয়।

মূলত নির্দিষ্ট কিছু খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে সরকার অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের এ সুযোগ দিয়েছে। তবে এর ফলে নিয়মিত কর পরিশোধকারীদের চাইতে অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা কম কর দিয়ে টাকা বৈধ করার সুযোগ পাওয়ায় নিয়মিত করদাতারা নিরুত্সাহিত হতে পারেন বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা। অন্যদিকে অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা আরো উত্সাহিত হতে পারেন।

আবাসন খাতে অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাব অনুযায়ী বিভিন্ন এলাকাভিত্তিক অপেক্ষাকৃত কম টাকা পরিশোধ করে অপ্রদর্শিত অর্থ বৈধ করা যাবে। প্রস্তাব অনুযায়ী গুলশান, বনানী, বারিধারা, মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকায় ও এগুলোর দুইশ বর্গমিটারের মধ্যে অ্যাপার্টমেন্ট বা ভবন ক্রয়ে প্রতি বর্গমিটারে বিদ্যমান কর সাত হাজার ও পাঁচ হাজার টাকার স্থলে পাঁচ হাজার ও চার হাজার টাকা হচ্ছে। এছাড়া এসব এলাকায় প্রতি বর্গমিটার জমিতে ১৫ হাজার টাকা কর দিয়ে বৈধ করা যাবে।

একইভাবে রাজধানীর অন্যান্য এলাকা, সিটি করপোরেশন ও পৌরসভায় অ্যাপার্টমেন্ট ক্রয়ে বিদ্যমান করের পরিমাণ কমছে। ওইসব এলাকায় জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট পরিমাণ কর দিয়ে টাকা বৈধ করা যাবে।

User Comments

  • ব্যবসা ওঅর্থনীতি